ssc-http://www.onlinemathacademy.org

বীজগাণিতিক সমীকরণ

• অজানা বা অজ্ঞাত রাশি বা যে সকল রাশির মান পরিবর্তনশীল সেগুলো চলক।

• চলক, প্রক্রিয়া চিহ্ন বা সমান চিহ্ন সংবলিত গাণিতিক বাক্য হলো সমীকরণ।

• একটি সমীকরণের দুইটি পক্ষ থাকে। সমান (=) চিহ্নের বাম পাশের রাশিকে বামপক্ষ এবং ডানপাশের রাশিকে ডানপক্ষ বলা হয়।

সরল সমীকরণের সমাধান

• একটি সমীকরণ থেকে এর চলকটির মান নির্ণয় করার প্রক্রিয়াকে বলা হয় সমীকরণের সমাধান।

• সরল সমীকরণের সমাধানে চলকের একটি মান পাওয়া যায়। চলকের মানকে সমীকরণটির মূল বলা হয়। এই মূল দ্বারা সমীকরণটি সিদ্ধ হয়। অর্থাৎ মুলটি সমীকরণে বসালে সমীকরণের দুই পক্ষ সমান হয়।

• সমাধান করার সময় চলকটিকে সাধারণত বামপক্ষে রাখা হয়।

• পরস্পর সমান রাশির সাথে একই রাশি যোগ বা বিয়োগ করলে যোগফল বা বিয়োগফলগুলো পরস্পর সমান হয়।

• পরস্পর সমান রাশির প্রত্যেকটিকে একই রাশি দ্বারা গুণ করলে গুণফলগুলো পরস্পর সমান হয়।

• পরস্পর সমান রাশির প্রত্যেকটিকে অশূন্য একই রাশি দ্বারা ভাগ করলে ভাগফলগুলো পরস্পর সমান হয়।

• যখন শুদ্ধি পরীক্ষা করা হয় তখন দুই পক্ষে চলক থাকলে, চলকের প্রাপ্ত মান দুই পক্ষেই পৃথক ভাবে বসাতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here